fbpx

Select Your Favourite
Category And Start Learning.

Online Spoken English: Learn from home

If you have a child who is under 8 years old, then this is the right time to learn a new language. And to start, we should all prefer to learn English. Online Spoken English courses can be a great way to learn English at home.

আপনার যদি ৮ বছরের নিচে কোন সন্তান থাকে, তাহলে এটাই উপযুক্ত সময় তাকে একটা নতুন ভাষা শেখানোর জন্য। আর সেটা অবশ্যই হওয়া উচিত ইংরেজি। অনলাইনের স্পোকেন ইংলিশ কোর্স এটা ভালো উপায় ঘরে বসে ইংরেজি শেখার জন্য।

এই বয়সে শিশুর ব্রেইন অনেকটা স্পঞ্জবলের মতো – তার অনেক বেশি তথ্য নেয়ার ক্ষমতা থাকে। অভিভাবকরা এখন চাইলেই এই ধরণের কোন ইংরেজি ভাষা শেখার প্রোগ্রামে সন্তানকে পাঠাতে পারেন না। হয়তো আপনার এলাকাতে এই ধরণের ভালো মানের কোন প্রোগ্রাম নেই। অথবা ব্যস্ততার কারণে শিশুকে সেই সব প্রোগ্রামে নিয়মিত নেয়ার সুযোগ হয় না। আবার যতটা মজার এবং এনগেজিং হওয়া দরকার সেটা না।

এই ধরণের সমস্যায় অনলাইনে ইংরেজি শেখার কোর্স হতে পারে দারুণ একটা উপায়। নিরাপদে ঘরে বসে নিজের সময় অনুযায়ী শিশু শিখতে পারলো।

Online English Course

অনলাইনে দুটো উপায়ে শিশু ইংরেজি শিখতে পারে। একটা হচ্ছে, কোন একটা অ্যাপের মাধ্যমে। যেমন LingoKids একটা খুব জনপ্রিয় অ্যাপ শিশুদের জন্য ইংরেজি বা অন্য ভাষা শেখার জন্য। এখানে বিভিন্ন রেকর্ডেড কনটেন্ট থাকে, সেগুলো দেখে বা শুনে আপনার শিশু ইংরেজি শিখতে পারে। এটা অনেকটা সুন্দর করে গুছিয়ে রাখা অনেকগুলো ইউটিউব ভিডিওর মতো। পাশাপাশি কিছু একটিভিটি থাকে এবং তার মাধ্যমে শিশুর প্রোগ্রেস দেখা যায়।

দ্বিতীয় উপায় হচ্ছে অনলাইনে কোন শিক্ষকের কাছ থেকে শেখা। অনেকটা স্কুলে যেভাবে শেখানো হয়। এখন বাংলাদেশে দেখা যাচ্ছে যারা আগে IELTS শেখাত, তারাই শিশুদের স্পোকেন ইংলিশ শেখাচ্ছেন। অথবা স্কুলে শিশুদের ইংরেজি ক্লাস নেন তিনি অনলাইনে জুমে ক্লাস নিচ্ছেন।

এই দুটো উপায়েরই কিছু ভালো দিক আছে, আবার কিছু মন্দ দিকও আছে। কিন্তু ৩ নাম্বার কোন উপায় যদি থাকতো, যেখানে উপরের দুটি জিনিসই একসাথে দেয়া হচ্ছে, তাহলে কেমন হতো?

সেটা নিয়ে আরও পরে জানবো আমরা। তার আগে অনলাইনে ইংরেজি শেখার কিছু বেনেফিট সম্পর্কে জেনে নেই।

Benefits of Online English Classes

অনলাইন ইংরেজি ক্লাসের মাধ্যমে এমন শিক্ষকদের যুক্ত করা যায় যারা সাবলীলভাবে ইংরেজিতে কথা বলতে পারেন। তাদের কাছে যখন শিশুরা সরাসরি শিখে, তখন সেটা অনেক কাজে দেয়। পাশাপাশি আর কি কি বেনেফিট আপনার শিশু অনলাইন ক্লাস থেকে পেতে পারে?

১। মজাদার এবং এনগেজিং

অনলাইনে চাইলেই শিশুকে বিভিন্ন গেম, গান, ভিডিও, গল্প, ক্র্যাফট ইত্যাদির মাধ্যমে শেখানোর সুযোগ আছে। একজন ভালো শিক্ষক এই ধরণের রিসোর্স ব্যবহার করে শিশুর ইংরেজি শেখাকে অনেক আনন্দময় করতে পারেন। এটি অফলাইনে কোন একটা সেন্টারে করা কঠিন।

২। যেকোনো জায়গা থেকে যেকোনো সময় শেখা

অনলাইন ক্লাসের সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে যেকোনো জায়গা থেকে সময় অনুযায়ী নিজের মতো করে শেখা। অভিভাবকরা নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী ক্লাসের শিডিউল করতে পারেন। এবং কেবল স্মার্টফোন ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে পৃথিবীর যেকোনো জায়গা থেকে সবচেয়ে ভালো সার্ভিসটা পেতে পারেন।

৩। যোগাযোগ দক্ষতা বাড়ে

অনলাইনে ক্লাস করা হচ্ছে মানে শিক্ষকের কাছ থেকে সরাসরি শুনতে হচ্ছে। আবার তার সাথে কথা বলতে হচ্ছে। যখন একজন নেটিভ ইংরেজি শিক্ষক থাকেন, বা নেটিভ স্পিকারদের মতো কথা বলতে পারেন, তখন তার কাছ থেকে শিশু আরও ভালোমতো শিখে। এবং মনোযোগ দিয়ে শুনার কারণে একটা বিদেশি ভাষা শুনে বুঝতে পারার দক্ষতা বাড়ে। এবং পাশাপাশি যে যদি কোন অ্যাপ বা অনলাইনে ক্লাসে কথা বলার সুযোগ পায়, তাতে করে তার শুরু থেকে phonics বা উচ্চারণ ঠিক হয়ে যায়।

৪। নিরাপদ পরিবেশ

অনলাইনের চেয়ে নিরাপদ পরিবেশ আর হতেই পারে না। নিজের বাড়িতে নিজের রুমে বসে ক্লাস করা। অনেক সময় একটু shy শিশুরা কোথাও যেতে চায় না, বা সরাসরি কোন সেন্টারে কথা বলতে চায় না। অভিভাবকদেরও সেইসব ক্লাসে থাকার সুযোগ হয় না। কিন্তু অনলাইনে অভিভাবক পাশেই থাকতে পারছেন, প্রয়োজনে শিশুকে শিখতে সাহায্য করতে পারছেন। এবং তার কোথাও গ্যাপ থাকলে সেটাও সরাসরি দেখিয়ে দিতে পারছেন। আর অভিভাবক পাশে থাকার কারণে শিশুও আত্মবিশ্বাস নিয়ে কথা বলতে পারছে, বা ক্লাস করতে পারছে।

What’s the perfect age to start with online English classes?

৩-৪ বছর বয়স থেকেই চাইলে একটা নতুন ভাষার সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারেন অভিভাবক। এই বয়সেই শিশুদের অনলাইন ক্লাস করাতে পারেন। অনেক অভিভাবক মনে করেন যে শিশু যখন স্কুলে ভর্তি হবে তখন থেকে ইংরেজি শিখবে। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশের পরিস্থিতি অনুযায়ী আমরা জানি যে দেশের খুব নামীদামী ৪-৫ টা ইংরেজি মাধ্যম স্কুল ছাড়া অন্য স্কুলগুলোতে সঠিক উচ্চারণে ইংরেজি শেখার কোন সুযোগ নেই।

তাই বয়স বেশি হয়ে যাওয়ার আগেই শিশুকে অনলাইনে ভালো একটা কোর্সে ভর্তি করিয়ে দিতে পারেন। কারণ ৪-৫ বছর বয়সেই নতুন একটা ভাষা শেখার জন্য সবচেয়ে ভালো সময়। এরপর বয়স যখন বাড়তে থাকে, নতুন ভাষা শেখা ততই কঠিন হতে থাকে।

Joy School English Program

আমেরিকান প্রতিষ্ঠান Joy School English বাংলাদেশে শিশুদের জন্য স্পোকেন ইংরেজির প্রোগ্রাম শুরু করেছে। আমেরিকান উচ্চারণে ইংরেজিতে কথা বলা শেখানো হচ্ছে এই প্রোগ্রামের মূল লক্ষ্য। ৪-৮ বছর বয়সী শিশুদের জন্য উপযোগী প্রোগ্রাম এটি।

বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিতে ক্লিক করুন।

spoken english for kids