fbpx

Select Your Favourite
Category And Start Learning.

অনলাইনে সবার শীর্ষে কিডস টাইম

অভিভাবকদের দারুণ আগ্রহ এবং শিশুদের বিপুল উৎসাহের পরিচয় গত ৮ মাস ধরে আমরা পাচ্ছি। যখন আমরা শুরু করেছিলাম, কেউ বিশ্বাস করেনি যে অনলাইনে এত আনন্দ দিয়ে এত ছোট্ট শিশুদের দারুণ সব জিনিস শেখানো যায়। স্কুলের অনলাইন ক্লাসের সাথে তুলনা করছিলেন অভিভাবকরা। সেখানে শিশুরা যে ২০ মিনিটও বসতে চায় না। কিডস টাইমে কিভাবে একটা ৪-৫ বছরের শিশু ৪০ মিনিট-১ ঘন্টা ক্লাস করবে?

কিন্তু আমাদের পুর্ণ বিশ্বাস ছিল আমাদের শিক্ষকদের প্রতি। আমাদের এখানে যারা শিক্ষক হিসাবে যোগ দেন, তারা যে ধরণের প্রশিক্ষণ পান, সেটা বাংলাদেশের আর কোন স্কুলে যে হয় না সেটা আমরা নিশ্চিত। আমরা যে ধরণের কারিকুলাম তৈরি করেছি আমাদের কোর্সগুলোর জন্য সেটাও বাংলাদেশে আর কারোর কাছেই নেই।

আর তার ফলাফল এখন আমরা পেয়েছি। আমাদের পুরো কার্যক্রম অনলাইনে চালু করার মাত্র ৮ মাসের মধ্যে এখন বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন ক্রিয়েটিভ স্কুল এখন কিডস টাইম। গত বছর করোনার কারণে আমাদের ৮ টি সেন্টার বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর আমরা ভেবেছিলাম এতদিনের পরিশ্রমে গড়ে তোলা এই কার্যক্রম বন্ধই করে দিতে হবে। কিন্তু জুন মাস থেকে অনলাইনে সবগুলো কোর্স চালু করলাম।

পাশাপাশি আমেরিকান প্রতিষ্ঠান Joy School English কে বাংলাদেশে নিয়ে আসলাম। তাদের সাথে যৌথভাবে শুরু হল আমাদের Spoken English এর কোর্স। ইতিমধ্যে গত ২ সপ্তাহ আগে আমাদের আর্ট প্রোগ্রাম বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন ইন্সটিটিউট হওয়ার মর্যাদা অর্জন করলো। কানাডার প্রতিষ্ঠান EduCode এর সাথে চুক্তি করে তাদের Coding and Programming কোর্স বাংলাদেশে চালু হল সম্প্রতি।

মাশাল্লাহ, করোনার আগে আমরা বাংলাদেশে ছিলাম ৩ নাম্বার অবস্থানে। আমাদের সামনে ছিল বিদেশি ২ টি প্রোগ্রাম যারা গনিত নিয়ে বাংলাদেশে কাজ করছে ১০+ বছর ধরে। গত ১ বছরে সবার ভালবাসায় আমরা দুই বিদেশি কোম্পানিকে পেছনে ফেলে ১ নাম্বার স্থানে এসেছি।

কিন্তু এটি কেবল শুরু। গত ১ বছর ধরে বাংলাদেশের দেড় কোটি প্রি-স্কুল এবং আর্লি গ্রেডের শিশুরা স্কুলে যেতে পারছে না। এতে করে ক্ষতি হচ্ছে লক্ষ লক্ষ ঘণ্টার শেখার সুযোগ। আর স্কুল বন্ধ থাকায় চাকুরি হারিয়েছেন বা বেতন বন্ধ আছে হাজার হাজার শিক্ষকদের। আপনারা জেনে খুশি হবেন যে গত ১ বছরে কিডস টাইমের শিক্ষকরা ১২ লাখ টাকার উপার্জন করেছে ঘরে বসে অনলাইনে ক্লাস নিয়ে। এতে করে তাদের প্রত্যেকের পরিবার এই কঠিন সময়ে দারুণ সহায়তা পেয়েছেন।

শিশুদের এবং পাশাপাশি শিক্ষক – এই দুই পক্ষকে সহায়তা করতে আগামী ১ বছরে আমরা আরও অন্তত কয়েকশত শিক্ষক নিয়োগ দিতে চাই, যারা ঘরে বসেই অনলাইনে আমাদের কারিকুলাম অনুযায়ী ক্লাস নিতে পারবে। এবং হাজার হাজার শিশুদের সৃজনশীলতা, সমস্যা সমাধানের দক্ষতা ও ভবিষ্যতের জন্য গড়ে তোলার কাজে সাহায্য করতে পারবে। আমাদের সাথে থাকার জন্য সব অভিভাবক এবং অনলাইন শিক্ষকদের অসংখ্য ধন্যবাদ।

আশা করি অভিভাবক হিসাবে আপনাদের সাথে পাবো।

kids time online class

আমাদের কোর্সগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ https://kidstimebd.com/live-courses/

সরাসরি কথা বলতে পারবেন কোর্স সম্পর্কে এই নাম্বারেঃ +8801979774064 (Whatsapp)