Posted on

মহান বিজয় দিবস ২০১৯ উপলক্ষে শিশুদের জন্য মিরপুর ১০ নাম্বারে দিনব্যাপী আয়োজিত হয়েছে ‘বিজয় মেলা ২০১৯’। সকাল থেকেই শিশু আর অভিভাবকদের আগমনে ভরপুর ছিল মুকুল ফৌজ মাঠ প্রাঙ্গণ।

আমাদের মুক্তিযুদ্ধ এবং বিজয়ের গৌরবগাঁথায় নতুন প্রজন্মকে আলোকিত করতে এবং তাদের মধ্যে দেশপ্রেমকে জাগিয়ে তুলতে দিনব্যাপী এই মেলার আয়োজন করা হয়। তিতুমির আর্ট একাডেমী, হাতেখড়ি পাঠশালা এবং Kids Time এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত হয় এই শিশুদের বিজয় মেলার।

বিজয় মেলার উদ্বোধন করেন জনাব কাজী জহিরুল ইসলাম মানিক, কাউন্সিলর, ৩ নং ওয়ার্ড, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন। তার সাথে ছিলেন স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং মুক্তিযোদ্ধারা।

সকাল থেকে মোট ৪ টি দলে শিশুরা ভাগ হয়ে বিভিন্ন বিষয়ের উপর ছবি আঁকা প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। তারমধ্যে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের দলও ছিল। মিরপুরে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় ছবি আঁকার প্রতিযোগিতাটির রেকর্ডও করে ফেলল বিজয় মেলা ২০১৯।

শিশুরা ছবি আঁকা শেষ করে বানায় বিজয়ের ক্র্যাফট। বিকালে আমাদের মুক্তিযুদ্ধ এবং বিজয়ের উপর ভিত্তি করে শিশুদের জন্য আয়োজিত হয় পাপেট শো। এই শোটি করে বাংলাদেশের জনপ্রিয় পাপেট টিম Inventors Puppets. এছাড়া শিশুরা নিজেরা আয়োজন করে নানা ধরণের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

 

মেলায় আসা শিশু এবং অভিভাবকদের জন্য বিভিন্ন স্টল সাজিয়ে বসেছিল বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। সেখানে শিশুদের উপযোগী সৃজনশীল পণ্য, শিশুদের জন্য গেম, অভিভাবকদের জন্য সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানসহ ছিল মতো ৬ টি স্টল। সেখান থেকে অভিভাবক এবং শিশুরা বিভিন্ন পণ্য এবং সেবা স্বল্পমূল্যে নিতে পেরেছে।

শিশুদের উৎসাহ দেয়ার জন্য জনাব আলহ্বাজ ইলিয়াসউদ্দিন মোল্লা, সংসদ সদস্য, ঢাকা ১৬ আসন, এসেছিলেন অনুষ্ঠানে। শিশুদের উৎসাহিত করেন সৃজনশীল কাজ করতে, তারা যেন দেশের সবাইকে ভালোবাসে, দেশের জন্য কাজ করে সেই ব্যাপারেও উৎসাহিত করেন।

অভিভাবকদের উদ্দেশ্য তারা আহ্বান জানান যেন অভিভাবকরা শিশুদের পড়াশুনার পাশাপাশি তাদের মধ্যে সৃজনশীলতা, সমস্যা সমাধানের দক্ষতা এবং দেশের প্রতি ভালোবাসা তৈরিতে কাজ করেন। তারা যেন নিজেদের সন্তানদের ভালো ছাত্রছাত্রী বানানোর পাশাপাশি ভালো মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে চেষ্টা করেন। তাহলেই আমাদের শহীদদের আত্মা শান্তি পাবে।

 

মিরপুর ১০ নাম্বারে চালু হতে যাচ্ছে কিডস টাইমের ৮ম শাখা। বিস্তারিত দেখুন নিচের ছবিতে। নতুন সেন্টার উদ্বোধন হবে আগামী জানুয়ারি ১০, ২০২০ সালে। উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রেজিস্ট্রেশন করুন এই লিঙ্কে। 

রেজিস্ট্রেশন লিঙ্ক 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *