Raising Children Ranking: সেরা ১০ টি দেশ কোনগুলো

Raising Children Ranking: সেরা ১০ টি দেশ কোনগুলো

April 16, 2019 Parenting 0

নিজের সন্তানকে একটা সুন্দর পরিবেশে বড় করার ইচ্ছা সব অভিভাবকদেরই। কেবল এই আশাতেই দেশ ছাড়েন অনেক মানুষ। আমাদের দেশের অনেক অভিভাবককেই বলতে শুনি তারা কেবল সন্তানের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই বিদেশে পাড়ি জমানোর কথা ভাবেন।

কিন্তু আসলে সন্তানকে সঠিকভাবে এবং সুন্দর পরিবেশে বড় করার ইচ্ছা নিয়ে যদি দেশ ছাড়তেই চান তবে আসলে জেনে নেয়া ভালো পৃথিবীর কোন দেশগুলো এক্ষেত্রে সবচেয়ে এগিয়ে।

৮ টি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে একটা global perception-based survey তে সেরা ১০ টি দেশের তালিকায় যেসব দেশ উঠে এসেছে সেগুলোর লিস্ট আমরা নিচে দিয়েছি। কিন্তু তার আগে চলুন জেনে নেই সেই ৮ টি বিষয় আসলে কি কি?

1. Cares about human rights

2. Family friendly

3. Gender equality

4. Happy

5. Income equality

6. Safe

7. Well-developed public education system

8. Well-developed health care system

এই ৮ টি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে Raising Children Ranking এ জায়গা করে নিয়েছে যে দেশগুলোঃ

10. Belgium 

Not Ranked in 2018

9. New Zealand 

#8 out of 80 in 2018

8. Australia

#9 out of 80 in 2018

7. Switzerland 

No Change in Rank from 2018

6. Netharlands 

No Change in Rank from 2018

5: Finland

#4 out of 80 in 2018

4. Canada

#5 out of 80 in 2018

 

3. Norway 

No Change in Rank from 2018

 

2. Denmark 

#1 out of 80 in 2018

 

1. Sweden 

#2 out of 80 in 2018

 

অবাক করা ব্যাপার হল যে ১০ টি দেশের মধ্যে ৭ টি হচ্ছে ইউরোপের দেশ। আরও ভালো করে বলতে গেলে Scandanevian দেশগুলোর প্রাধান্যই বেশি। এই দেশগুলোর শিক্ষা এবং স্বাস্থ্যব্যবস্থা চমৎকার। সরকার অনেক বেশি ট্যাক্স নেয় যে কারণে এই সুবিধাগুলো সরকারিভাবেই দেয়া হয়।

UK আছে ১২ নাম্বারে, Germany আছে ১৩ নাম্বারে, Japan ১৯ নাম্বারে এবং আমাদের অনেকের জন্য স্বপ্নের দেশ USA আছে ২০ নাম্বারে।

আমাদের প্রতিবেশী দেশের মধ্যে Srilanka জায়গা পেয়েছে ৬০ নাম্বারে, India আছে ৬৫ নাম্বারে।

পুরো তালিকাটি দেখতে চলে যান এই লিঙ্কে।

 

Related Article

কোন দেশের শিশুরা সবচেয়ে সুখি? 

 

 

Get parenting article to your inbox

You have successfully subscribed to the newsletter

There was an error while trying to send your request. Please try again.

Kids Time will use the information you provide on this form to be in touch with you and to provide updates and marketing.